দিনাজপুরে ক্রিকেট কোচ মিঠুকে আজীবন বহিস্কার

50

রংপুর বার্তা.কম:যৌন হয়রানির অভিযোগে অভিযুক্ত দিনাজপুরের ক্রিকেট কোচ আবু সামাদ মিঠুকে আজীবন বহিস্কারের দাবি জানানো হয়েছে।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি জানায় কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসর।

দিনাজপুরে এক নারী ক্রিকেট প্রশিক্ষণার্থীকে ওই কোচ যৌন নিপীড়নের চেষ্টা করেছেন- এ অভিযোগ গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর দেশব্যাপি তোলপাড় শুরু হয়। কোচ মিঠুকে বহিস্কারের দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও রাজপথে অনেকেই সোচ্চার হয়ে ওঠেন। সবার একটাই দাবি হয়ে ওঠে, যে কোচের কাছে নারী খেলোয়াড়রা নিরাপদ নয় তাকে যেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) আজীবন বহিস্কার করে।

কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসেরের উপদেষ্টা তোবারক হোসেন বলেন, ‘অবিলম্বে সুষ্ঠু বিচার করে ওই কোচের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। তা না হলে বাবা-মা তাদের সন্তানদের আর ক্রীড়াঙ্গনে পাঠাবে না।

মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন খেলাঘর আসরের প্রেসিডিয়াম সদস্য লায়লা হাসান, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক রুনু আলী, শ্যামল বিশ্বস, মোশারফ, লাভলী চৌধুরী, আহসান হাবিব খান রিপন, তৌহিদ রিপন।

প্রসঙ্গত, গত ১ জুন দিনাজপুরের বড় ময়দানে ক্রিকেট খেলা অনুশীলনের সময় আঘাতে আহত হন এক প্রশিক্ষণার্থী প্রমীলা ক্রিকেটার। প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য তাকে পাশের স্পোর্টস ভিলেজের কক্ষে নিয়ে যান কোচ আবু সামাদ মিঠু। অনুশীলন চালু রাখার কথা বলে তাকে ও তার খেলোয়াড় বান্ধবীদের মাঠে পাঠিয়ে দিয়ে আঘাতস্থলে বরফের প্রলেপ দেন কোচ আবু সামাদ মিঠু। এ সময় আহত শিক্ষার্থীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন তিনি। এ সময় চিৎকার করে রক্ষা পান ওই প্রশিক্ষণার্থী। গত ১৪ জুন অভিযোগ দাখিল করেছেন ওই নারী ক্রিকেটারের বাবা।