ওবায়দুল কাদের ও মির্জা ফখরুলের দেখা হয়েছে

56

রংপুর বার্তা.কম:বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমরা যেহেতু রাজনীতি করি, তাই আলোচনার পথ খোলা রাখাই ভালো।

রোববার দুপুরে নীলফামারীর সৈয়দপুর থেকে ফেরার পথে বিমানবন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জে অপেক্ষা করছিলেন ওবায়দুল কাদের। পাশের আরেকটি কক্ষে মির্জা ফখরুল আছেন জেনে তার সঙ্গে দেখা করতে যান কাদের। পরে সাক্ষাতের এক পর্যায়ে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

একাধিক রাজনৈতিক নেতা এ তথ্য জানিয়েছেন। রাজনৈতিক নেতারা জানান, ওবায়দুল কাদের ও মির্জা ফখরুল ইসলামের দেখা হয়েছে। কুশল বিনিময় হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রোববার কাদের ও ফখরুলের ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) বিমানবন্দর থেকে একটি বেসরকারি উড়োজাহাজ কোম্পানির ফ্লাইটে সৈয়দপুর যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মির্জা ফখরুল সফর স্থগিত করেন। ফলে একই ফ্লাইটে দুই বড় দলের দুই নেতার সাক্ষাতের সুযোগটি আর হয়ে উঠল না। পরে দুপুরে সৈয়দপুর বিমানবন্দর থেকে ফেরার পথে ওবায়দুল কাদের ও ফখরুলের সঙ্গে কুশল বিনিময় হয়।

কুশল বিনিময়ের সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকা এয়ারপোর্টে আপনার জন্য অপেক্ষা করেছিলাম। আপনার সফর স্থগিত হওয়ায় আমাকে চলে আসতে হয়েছে। যেহেতু রাজনীতি করি, আলাপ–আলোচনার পথ খোলা রাখা ভালো।

ফেসবুকে ধর্মীয় উস্কানিমূলক পোস্ট দেয়ার অভিযোগে রংপুর সদর উপজেলার ঠাকুরপাড়ায় হিন্দুদের বাড়িতে অগ্নি সংযোগ, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে রোববার দুপুর ১২টায় একথা বলেন তিনি।

এ সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ করতে একটি মহল নানাভাবে অপচেষ্টা চালাচ্ছে। যারা এমন ষড়যন্ত্র করছে তারা বোকার রাজ্যে বসবাস করছে। কেননা এসব অপকর্ম করে নির্বাচন বানচাল করা যাবে না।
তিনি বলেন, বিগত সময়ে দেশে একের পর এক যে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটেছে তা একই সূত্রে গাঁথা। ঠাকুরপাড়ায় হামলার ঘটনায় যারা মঞ্চে এবং নেপথ্যে ছিলেন তারা যতই প্রভাবশালী হোক না কেন কেউই রেহাই পাবে না।