রংপুর সিটি করপোরেশনের দ্বিতীয় নির্বাচন ২১ ডিসেম্বর

71

রংপুর বার্তা.কম:আগামী ২১ ডিসেম্বর রংপুর সিটি কর্পোরেশন (রসিক) নির্বাচনের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে (নির্বাচন কমিশন) ইসি। আগামী ৫ নম্বেবর এ সিটি নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ। এটি রংপুর সিটি করপোরেশনের দ্বিতীয় নির্বাচন। এবারেই প্রথম দলীয় প্রতীকে এই সিটিতে নির্বাচন হতে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে সিসি ক্যামেরা বসানো হবে। এছাড়া একটি কেন্দ্রে পরীক্ষামূলকভাবে ইভিএম ব্যবহার করা হবে।

নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ৫ বছর মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে ভোট করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সে হিসাবে ২০১৮ সালের ১৮ মার্চের মধ্যে রংপুরে নির্বাচন করতে হবে।

কমিশন সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, এ সিটি কর্পোরেশনে বর্তমানে ভোটার রয়েছে ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৪২১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৯৬ হাজার ৬৫৯ এবং নারী ১ লাখ ৯১ হাজার ৭৬২ জন। ভোটকেন্দ্র ১৯৬টি, ভোটকক্ষ ১ হাজার ১৭৭টি।

জানা গেছে,সিটি করপোরেশনের আয়তন এখন ২০৩.৬৩ বর্গকিলোমিটার। এই আয়তনের মধ্যে রংপুর সদরের ১০টি, কাউনিয়া সারাই ও পীরগাছার কল্যাণীসহ ১২টি ইউনিয়ন মিলে ১১২টি মৌজাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এর মধ্যে ৭টি ইউনিয়ন পূর্ণাঙ্গ ও ৫টি আংশিক রয়েছে। তবে ক্যান্টনমেন্ট সিটি করপোরেশনের আওতার বাইরে।

রংপুরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে ২০১২ সালের ২০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদে স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) বিল, ২০০৯-এর মাধ্যমে রংপুর পৌরসভাকে আনুষ্ঠানিকভাবে সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত করা হয়।

এর আগে ১৮৬৯ সালে মাত্র ২৩ বর্গ কিলোমিটার এলাকা নিয়ে রংপুর পৌরসভার যাত্রা শুরু হয়। পরে তা ৫৪ বর্গ কিলোমিটারে উন্নীত হয়।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ২০ ডিসেম্বর প্রথমবারের মতো রংপুর সিটি কর্পোরেশনে ভোট হয়। ওই নির্বাচনে প্রথম নগর পিতা হন শরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।