দিনাজপুরে দুলাভাইয়ের হাতে শালী খুন

58

রংপুর বার্তা.কম:দিনাজপুরে দুলাভাইয়ের বিরুদ্ধে শালীকে খুনের অভিযোগ উঠেছে।এছাড়াও স্ত্রী আহত হয়েছেন। পুলিশ দুলাভাই শুভকে আটক করেছে।

সোমবার বিকাল ৩টার দিকে চিরিরবন্দরে এ ঘটনা ঘটে। চিরিরবন্দর থানার ওসি হারেসুল ইসলাম এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

ওসি হারেসুল ইসলাম জানান, পঞ্চগড়ের তেতুলিয়া উপজেলার ফাতেমা খাতুন সোনিয়ার সঙ্গে মালয়েশিয়া প্রবাসী কুমিল্লা জেলার আব্দুল্লাহ শুভর মোবাইল ফোনে প্রেম হয়। পরে তারা বিয়েও করেন। শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে সোনিয়া জানতে পারেন শুভর আরেক স্ত্রী আছে। পরে সোনিয়া সেখান থেকে চলে এসে স্বামীকে তালাক দেন। তালাকের পর থেকে সোনিয়া তার দুলাভাই আমিনুর রশিদ বকুলের দিনাজপুরের বাড়িতে থাকছিল।

ওসি জানান, সোমবার বিকাল ৩টার দিকে সোনিয়ার স্বামী শুভ আরও দুই জনকে সঙ্গে নিয়ে উপজেলা চত্বরে সোনিয়ার বাড়িতে আসে। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে তারা সোনিয়াকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এ সময় বড় বোন মর্জিনা আক্তার বাধা দেয়। তখন তারা মর্জিনাকেও কোপায়। এতে ঘটনাস্থলেই মর্জিনার মৃত্যু হয়। পরে এলাকাবাসী বিষয়টি জানতে পেরে শুভকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। এসময় অন্য দুই জন পালিয়ে যায়।

স্বজনরা জানান, বিকালে আহত সোনিয়া ও আটক শুভকে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে সোনিয়াকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়।