একটি সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করেছে ভারত-হাওলাদার

39

রংপুর বার্তা.কম:সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে বাংলাদেশে একটি সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করেছে ভারত বললেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমীন হাওলাদার।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় বনানীতে জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে ভারত সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রুহুল আমীন হাওলাদার বলেন, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক ধারা বহাল রাখতে ভারতীয় নেতৃবৃন্দ নৈতিক সমর্থন অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিয়েছেন।

আগামীতে সরকার গঠনের প্রত্যাশার কথা জানিয়ে জাতীয় পার্টির মহাসচিব বলেন, আগামীতে আমরা সরকার গঠন করতে পারব বলে আশা করছি। কারণ আগের তুলনায় আমাদের সাংগঠনিক অবস্থা অনেক ভালো।

তিনি বলেন, দেশ পরিচালনায় ভারতীয় নেতৃবৃন্দ আমাদের অতীত অভিজ্ঞতার প্রশংসা করেছেন। পরবর্তী নির্বাচনে আমাদের সাফল্যও কামনা করেছেন তারা।

মহাসচিব জানান, গত ১৭ জুলাই ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানান। সেই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা নয়াদিল্লি গেছি। আমাদের সফরটি অত্যন্ত ফলপ্রসূ হয়েছে।

তিনি বলেন, এ সফরে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়েছে। এ বৈঠক ছিল অত্যন্ত আন্তরিক ও সৌহার্দপূর্ণ।

হাওলাদার বলেন, ভারতীয় নেতৃবৃন্দ আমাদের জানিয়েছেন- তাদের সরকার ও জনগণ বাংলাদেশের সঙ্গে বিরাজমান সম্পর্ক আরও দৃঢ় দেখতে চায়। বাংলাদেশের গণতন্ত্র যেন বজায় থাকে, এটিই তাদের কামনা।

ভারতের নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও সাংবিধানিক ধারাবাহিকতা রক্ষায় জাতীয় পার্টির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন বলেও উল্লেখ করেন রুহুল আমীন হাওলাদার।

তিনি বলেন, ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বলেছেন- জাতীয় পার্টি বিরোধী দলে থেকেও সরকারের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে। এটি একটি বিরল দৃষ্টান্ত। এটি আগামীতে আরও অনেক গণতান্ত্রিক দেশ গ্রহণ করতে পারবে।

মহাসচিব বলেন, আমরা জানিয়েছি যে, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে জাতীয় পার্টি সবসময় সোচ্চার থাকবে। আমরা এখন জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমরা বলেছি- অত্যন্ত বিরূপ পরিস্থিতির মধ্যেও জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু, সোহেল রানা প্রমুখ।