বিএনপি সুন্দর রাজনীতি করুক-বাণিজ্যমন্ত্রী

19

রংপুর বার্তা.কম:বিএনপি সুন্দর রাজনীতি করুক। এতে তাদের স্বাগত জানাই। তারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে থাকুক, ভালো বিরোধীদলের ভূমিকা রাখুক বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

রোববার সকালে রংপুর সার্কিট হাউস মিলনায়তনে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিট (ডিআইইউ)-এর সহায়তায় রংপুর বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় এই কর্মশালার আয়োজন করে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনে হেরে যাওয়ার পর বিএনপি বলছে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড ছিল না। পুরনো অভিজ্ঞতা থেকে জানি, নির্বাচনে জিতলে বলে নায্য ভোট হলে আরও বেশি ভোটে জিততাম। আর হেরে গেলে বলে কারচুপির মাধ্যমে জয় নিজেদের পক্ষে নিয়েছে।

টিপু মুনশি বলেন, যারা আমাদের সম্পর্কে বিষোদগার করছে, তারা উপজেলা নির্বাচনে আসুক। পরীক্ষা করে দেখুক। আমার মতে তাদের নির্বাচনে আসা উচিত। দলকে ধরে রাখতে গেলে গণতান্ত্রিক দল হিসেবে নির্বাচনে আসা ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।

জাতিসংঘ ঘোষিত ২০৩০ এজেন্ডা বাস্তবায়নে সরকারের পরিকল্পনা উল্লেখ করে টিপু মুনশি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন জংশন কেমন হবে, সেই লক্ষ্য অর্জনে এ কর্মশালা।

বিশ্বের ১৬৯টি দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশকে সামনে এগিয়ে নিতে হবে। এসডিজি ও নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নে সরকার বদ্ধপরিকর।’

কর্মশালায় রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ জয়নুল বারীর সভাপতিত্বে মূখ্য আলোচক ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের (এসডিজি বিষয়ক) মূখ্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পরিকল্পনা কমিশনের (সাধারণ অর্থনীতি বিভাগ) সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রাণালয়ের সচিব মোঃ রইছউল আলম মণ্ডল।

স্থানীয় পর্যায়ে সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনা তুলে ধরে মূল প্রবদ্ধ উপস্থাপন করেন গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের উপ-পরিচালক (উপ সচিব) মোহাম্মদ আলী নেওয়াজ রাসেল।

রংপুর বিভাগের আট জেলা থেকে ১১০ জন কর্মশালায় অংশ নেন। দিনব্যাপী এ আয়োজনে জেলা প্রশাসকগণ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, পৌর মেয়রসহ বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি, পেশাজীবী ও ব্যবসায়ী সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নেয়।